শিরোনাম:
ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ৩০ মে ২০২৪, ১৬ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১

Somoy Channel
বৃহস্পতিবার ● ১৪ মার্চ ২০২৪
প্রথম পাতা » প্রধান সংবাদ » কুলাউড়ায় আসামী ধরতে গিয়ে হামলায় পুলিশসহ ৭ জন আহত
প্রথম পাতা » প্রধান সংবাদ » কুলাউড়ায় আসামী ধরতে গিয়ে হামলায় পুলিশসহ ৭ জন আহত
৪৫ বার পঠিত
বৃহস্পতিবার ● ১৪ মার্চ ২০২৪
Decrease Font Size Increase Font Size Email this Article Print Friendly Version

কুলাউড়ায় আসামী ধরতে গিয়ে হামলায় পুলিশসহ ৭ জন আহত

কুলাউড়ায় আসামী ধরতে গিয়ে হামলায় পুলিশসহ ৭ জন আহতকুলাউড়া: কুলাউড়ায় একটি ধর্ষণ চেষ্টা মামলার আসামী ধরতে গিয়ে আসামীর পরিবারের সদস্যদের হামলায় পুলিশ সদস্যসহ অন্তত ৭ জন আহত হয়েছেন। গতকাল বুধবার বিকেল ৫টায় উপজেলার কাদিপুর ইউনিয়নের হোসেনপুর গ্রামে এ ঘটনা ঘটে।

আহত পুলিশ সদস্যরা হলেন- কুলাউড়া থানার এসআই সালাউদ্দিন মিফতা (৩০), আনোয়ার মিয়া (৩৩), এ এস আই তপন দেব (৩৫) ও কনস্টেবল আফরোজ মিয়া (২৭)। এঘটনায় পুলিশ ঘটনাস্থল থেকে ৬ জনকে আটক করেছে।

গত ৪ মার্চ উপজেলার কাদিপুর ইউনিয়নে একটি ধর্ষণ চেষ্টার ঘটনায় পরদিন ভুক্তভোগীর পরিবারের পক্ষ থেকে থানায় একটি লিখিত অভিযোগ দেয়া হয়। অভিযোগের ভিত্তিতে পুলিশ তদন্ত শেষ করে ঘটনার সত্যতা পেয়ে গত মঙ্গলবার অভিযোগটি মামলা হিসেবে রেকর্ড করে। গতকাল বুধবার বিকেলে মূল অভিযুক্ত হোসেনপুর এলাকার বাসিন্দা তারা মিয়ার ছেলে আজাদ মিয়া (৪২)-কে ধরতে তার বাড়িতে অভিযান চালায় কুলাউড়া থানা পুলিশ।

এ সময় আসামী আজাদকে আটকের চেষ্টাকালে আসামীর পরিবারের লোকজন পুলিশের সাথে বাকবিতন্ডায় জড়ায় এবং ধস্তাধস্তি শুরু করে পুলিশের ওপর হামলা চালায়। এসময় আসামী আজাদ মিয়া পালিয়ে যায়। হামলায় ৪ পুলিশ সদস্য ছাড়াও মামলার বাদী কয়েছ মিয়া (২৯), তার মাতা ওমরুন নেছা (৬০), ভাই নাবিল (২১) আহত হন। পরে কুলাউড়া থানার অন্য পুলিশ সদস্যরা ঘটনাস্থলে ছুটে গিয়ে আহতদের উদ্ধার করে। আহতরা কুলাউড়া উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে প্রাথমিক চিকিৎসা নিয়েছেন।

হাসপাতালের কর্তব্যরত চিকিৎসক ডা. শিবনাথ ভট্টাচার্য বলেন, আহত ৪ পুলিশ সদস্যসহ ৭জন আঘাতপ্রাপ্ত হলে তাদের প্রাথমিক চিকিৎসা দেয়া হয়েছে।

কুলাউড়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মোহাম্মদ আলী মাহমুদ বলেন, ঘটনার সাথে জড়িত ৬ জনকে আটক করা হয়েছে। বাকি আসামীদের ধরতে অভিযান অব্যাহত আছে। এ ঘটনায় মামলার প্রস্তÍুতি চলছে বলেও জানান তিনি।

*সিলেটের ডাক



বিষয়: #  #  #  #


আর্কাইভ

পাঠকের মন্তব্য

(মতামতের জন্যে সম্পাদক দায়ী নয়।)